শনিবার , ১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
×

বাংলাদেশের গণমাধ্যমে ‘হঠাৎ আকাশে রহস্যময় আলো! শিরোনামে পাঠক মনে সংশয়!


‘আনন্দ বাজার’ পত্রিকা থেকে নেয়া, প্রকাশিত খবর; আকাশে অদ্ভুত আলো কিসের, অবশেষে তার হদিস মিলল প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে, কলকাতা থেকে জেলা, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার আকাশে আচমকা দেখা যায় অদ্ভুত আলো। আর তা ঘিরেই ঘনায় রহস্য। ওই আলো ঘিরে সাধারণ মানুষের মনে তৈরি হয় কৌতূহল।

আকাশে অদ্ভুত আলো কিসের? এ নিয়ে জল্পনার মধ্যেই সামনে এল নতুন তত্ত্ব। প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পরীক্ষা করা হয়েছে অগ্নি-৫ ক্ষেপণাস্ত্রের। ওই উৎক্ষেপণ সফল হয়েছে। এই খবর জানা গিয়েছে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে। যদিও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা নিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে এখনও কিছু জানানো হয়নি ডিআরডিও-র তরফে।

ডিআরডিও-র নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি ক্ষেপণাস্ত্র অগ্নি-৫। তা পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম। ৫ হাজার কিলোমিটার পর্যন্ত পাল্লা ওই ক্ষেপণাস্ত্রের। এর মধ্যে নিখুঁত ভাবে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম অগ্নি-৫। সম্প্রতি অরুণাচল প্রদেশের তাওয়াংয়ে সম্মুখ সংঘাতে জড়িয়ে পড়েছিল ভারত এবং চিনের সেনা। তার মধ্যে ভারতের অগ্নি-৫-এর মতো ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

বিপরীত দিকে বাংলাদেশের একটি পোর্টালে এ শিরোনাম করেছে ‘ হঠাৎ আকাশে রহস্যময় আলো!’ যার বিস্তারিত প্রকাশিত খবর; সাতক্ষীরা: সন্ধ্যায় সাতক্ষীরার আকাশে দেখা গেছে এক রহস্যময় আলোকচ্ছটা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, আকাশ থেকে কেউ টর্চলাইট জ্বালিয়ে রেখেছে আকাশেরই বুকে, ছবিতে যেমনটাই দেখা গেছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ ডিসেম্বর) দৃশ্যটি দেখে রীতিমত বিস্মিত হয়েছেন সাধারণ মানুষ। জেলাব্যাপী এ দৃশ্য দেখা যাওয়ায় বিষয়টি কিছুক্ষণের মধ্যেই ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে। বেশ কয়েক মিনিট ওই আলো দেখা যায়।

জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এ উজ্জ্বল আলোর ছবি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করতে থাকেন উৎসুক মানুষজন। সেই সঙ্গে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন তারা। মামুনুর রশীদ নামে এক ব্যক্তি ফেসবুকে ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, আকাশে অদ্ভুত আলো।মো. শহীদুল আরাফাত এ ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, এটা কৃত্রিম কোনো ড্রোন বা স্যাটেলাইট সম্ভবত।
মাসুম নামের একজন মজা করে লিখেছেন, গুগল ম্যাপ আপডেট হচ্ছে সম্ভবত, তাই লাইট দিয়ে ছবি তোলা হচ্ছে। শেখ আলমগীর লিখেছেন, মহান আল্লাহ পাক সব ভালো জানেন। কি হবে দুনিয়ায়, হঠাৎ আকাশে দেখলাম!

বিষয়টি নিয়ে সাতক্ষীরা আবহাওয়া কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জুলফিকার আলী রিপন বলেন, এটা নিয়ে অনেকেই ফোন দিয়ে জানতে চেয়েছেন। কিন্তু আমি যেহেতু দেখিনি, তাই নিশ্চিত না হয়ে কিছু বলতে পারব না।সামাজিক মাধ্যমে দেখা গেছে, কলকাতার নাগরিকরাও এই রহস্যময় আলো দেখেছেন এবং তারা ছবি ভিডিও পোস্ট করেছেন। তবে এখন পর্যন্ত ওই আলোর উৎস বা ঘটনা সম্পর্কে কোনো ব্যাখ্যা পাওয়া যায়নি।

শুধু তা নয় দেশের প্রায় গণমাধ্যমে বিষয়মুখী সংবাদে অসমতা দেখা যায়, এ নিয়ে পাঠকের সাথে কথা বলে জানা গেছে, নিউজটা নিয়ে ভারতের গণমাধ্যমের খবরের সাথে বাংলাদেশের গণমাধ্যমের খবরের মধ্যে বৈসাদৃশ্য দেখা যায়, তারা আরো বলেন, দেশের গণমাধ্যম যদি আন্তর্জাতিক সূত্র না নিয়ে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশ না করে তাইলে খবরের সত্যতা নিয়ে আমাদের সংশয় সৃষ্টি হয়, এটা আমরা দেশের গণমাধ্যমের দূর্বলতা বলে মনে করছি।